সোমবার । জুলাই ৬, ২০২০ । । ০১:৩৮ এএম

ঋণের জন্য এক্সিম ব্যাংকের এমডিকে 'হত্যাচেষ্টা ও নির্যাতন'

নিজস্ব প্রতিবেদক। নতুনআলো টোয়েন্টিফোর ডটকম
প্রকাশিত: 2020-05-27 04:12:54 BdST হালনাগাদ: 2020-05-27 14:41:26 BdST

Share on

এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া। ছবি: সংগৃহীত

'এমডি মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়ার পক্ষে গুলশান থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে', জানিয়েছে পুলিশ।


এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া ও অতিরিক্ত এমডি মোহাম্মদ ফিরোজ হোসেনকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করেছেন সিকদার গ্রুপের দুই পরিচালক।


পদস্থ দুই ব্যাংক কর্মকর্তা ঋণের জন্য বন্ধকি সম্পত্তির মূল্য বেশি দেখাতে রাজি হননি বলেই এই আক্রমণের শিকার হয়েছেন। শুধু তাই নয়, বনানীর একটি বাসায় আটকে রেখে তাদের ওপর নির্যাতনও করা হয়েছে। এর পাশাপাশি সাদা কাগজে সই নেওয়া হয়েছে তাদের।


গুলশান জোনের সহকারী কমিশনার রফিকুল ইসলাম জানিয়েছেন, 'এমডি মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়ার পক্ষে গুলশান থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।'


এক্সিম ব্যাংকের পরিচালক খন্দকার নুরুল আফসার বলেন, 'এই ঘটনার পর এমডি দুই সপ্তাহ ধরে অফিসে আসেননি।'


অভিযুক্ত দুজন সিকদার গ্রুপের মালিক জয়নাল সিকদারের ছেলে এবং গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রন হক সিকদার ও তার ভাই দিপু হক সিকদার। মামলা দায়েরের পর থেকে দুই ভাই পলাতক রয়েছেন বলে জানা গেছে।


মামলার বিবরণীতে জানা যায়, ঘটনাটি ৭ মে'র। এক্সিম ব্যাংক মামলা করেছে ১৯ মে। ৫০০ কোটি টাকা ঋণ প্রস্তাব নিয়ে ঘটনার সূত্রপাত। ওই ঋণের বিপরীতে বন্ধকি সম্পত্তি পরিদর্শনের নামে এক্সিম ব্যাংকের দুই কর্মকর্তাকে ডেকে আনা হয়েছিল সেদিন।


ৃআরও জানা যায়, ওই সময় জামানত হিসেবে ওই সম্পত্তির বন্ধকি মূল্য কম উল্লেখ করেন ব্যাংকটির এমডি ও অতিরিক্ত এমডি। এরপরই গুলি ও মারধরের ঘটনা ঘটে। ব্যাংকটির এমডির কাছে একটি সাদা কাগজে জোর করে স্বাক্ষর নেন রন হক সিকদার ও দিপু হক সিকদার।



  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত