রবিবার । নভেম্বর ২৯, ২০২০ । । ০৪:১২ পিএম

এসআই আকবরকে ধরিয়ে দিতে ১০ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক। নতুনআলো টোয়েন্টিফোর ডটকম
প্রকাশিত: 2020-10-19 20:53:58 BdST হালনাগাদ: 2020-10-20 15:01:19 BdST

Share on

পলাতক এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়া

সিলেটের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতন করে রায়হান আহমদ হত্যার ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত ওই ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়াকে ধরিয়ে দিলে বা গ্রেপ্তার করতে পারলে ১০ লাখ টাকা পুরস্কার ঘোষণা করেছেন এক প্রবাসী। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী সামাদ খাঁন নামের ওই ব্যক্তি সোমবার দুপুরে এ ঘোষণা দেন।

 

সামাদ খাঁনের বাড়ি সিলেটে গোলাপগঞ্জে। তার এ ঘোষণা ইউটিউব চ্যানেল 'সিলেটি টিভি' প্রচার করে। আমেরিকার নিউজার্সিতে সামাদের একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

 

নিউ জার্সিতে ইউটিউব চ্যানেলটিকে সামাদ খান বলেন, এসআই আকবর ভূঁইয়াকে আগামী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে যদি কেউ ধরিয়ে দিতে পারেন বা পুলিশের কেউ যদি গ্রেপ্তার করতে পারেন তাকে দশ লাখ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে। সামাদ খাঁন এ বিষয়ে তার সঙ্গে ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার বা মোবাইল নম্বরে (+১ (৮৬২) ৬০০-১৫৮৮) যোগাযোগ করতে বলেছেন।

 

এ পুরস্কার ঘোষণা প্রসঙ্গে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (গণমাধ্যম) আশরাফ উল্ল্যাহ তাহের সমকালকে বলেন, প্রবাসীর ওই ঘোষণা তার নিজস্ব মতামত। ব্যক্তিগতভাবে তিনি পুরস্কারের কথা বলেছেন। আমরা এ নিয়ে কিছু বলব না। পুলিশ যা করণীয় করে যাচ্ছে।

 

১১ অক্টোবর নগরীর আখালিয়া নেহারিপাড়ার বাসিন্দা রায়হান আহমদকে বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে আটকে রেখে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়। পুলিশের পক্ষ থেকে প্রথমে রায়হান ছিনতাইকালে গণপিটুনিতে নিহত হন বলে দাবি করা হয়। তবে নির্যাতন করে হত্যার বিষয়টি প্রকাশ পেলে তোলপাড় শুরু হয়।

 

এ ঘটনায় ১৩ অক্টোবর অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে কোতোয়ালি থানায় হত্যা মামলা করেন রায়হানের স্ত্রী। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ জড়িত থাকার অভিযোগে ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়া, কনস্টেবল হারুনুর রশিদ, তৌহিদ মিয়া ও টিটু চন্দ্র দাসকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

 

একই সঙ্গে এএসআই আশেক এলাহী, এএসআই কুতুব আলী ও কনস্টেবল সজিব হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়। ১৩ অক্টোবর থেকে প্রধান অভিযুক্ত এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়া পলাতক রয়েছে।



  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত